সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

টিনএইজ জটিলতা - প্রয়োজন ধৈর্য্য আর সহনশীলতা

টিনএইজ খুব প্রচলিত একটি শব্দ। ১৩ থেকে ১৯ বা ইংরেজিতে thirTEEN to nineTEEN সময়টাকে বলা হচ্ছে টিনএইজ। এই এইজ কে নিয়ে কমবেশি সবাই একটু চিন্তায় থাকে। কেননা এই বয়সে ছেলে-মেয়েদের শারিরীক এবং মানসিক কিছু পরিবর্তন ঘটে এবং অনেক বাবা মা এই বয়সটাকে বুঝতে পারেন না। ফলে সন্তানের সাথে দূরত্ব তৈরি হয়। এতে বাবা মা যেমন কষ্ট পায় তেমনি সন্তানও তাদের ভুল বুঝতে থাকে। কিন্তু মা বাবা একটু সতর্ক আর সহনশীল হলেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। সন্তানের ভূমিকা এক্ষেত্রে কম কারণ তারা নিজ়েই দ্বিধাগ্রস্থ থাকে এবং বন্ধুদের সবচেয়ে কাছের মানুষ মনে করে। আর বন্ধু নির্বাচন সঠিক না হলে সমস্যা আরো প্রকট আকার ধারণ করে। তাই সন্তানের দাবী দাওয়া অযৌক্তিক হলেও উত্তেজিত না হয়ে ধীরে সুস্থে বোঝাতে হবে। পরিবার যে তার পক্ষে আছে এই বোধোদয় টা যেন তার হয় সেই চেষ্টা করতে হবে। বেশিরভাগ টিনএজড তাদের বাবা মাকে ব্যাকডেটেড মনে করে। যদিওবা তার বাবা মা তাদের সময়ে অনেক আপডেটেড ছিলো! এই যে জেনারেশন গ্যাপ এটা পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধা না থাকলে দূর করা কঠিন। যেই ছেলে/মেয়ে জাস্টিন বিবারের গানের কঠিন ফ্যান তার সামনে যদি প্রিয় শিল্পীর গান সম্পর্কে আজেবাজে মন্তব্য করা হয় তাহলে সে নিজের পছন্দ অপছন্দগুলো আর শেয়ার করবেনা। আবার বাবা মার পছন্দ নিয়ে হাসাহাসি করলে গার্ডিয়ানরা বেয়াদব ভাবতে পারে। আর এভাবেই ছোটখাট বিষয় থেকে সম্পর্কে দূরত্ব চলে আসে। তাই একটু ধৈর্য আর সহনশীলতা পারিবারিক জীবনকে সুন্দর ও স্বাভাবিক গতি দিতে পারে।
এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

teen, teenage, young, mental, physical, health, modern, respect, children, parents