সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Falgun-Makeover-Tips.jpg

সাজগোজ আসছে ফাগুন, সাজুক মন; ফাগুনের সাজের খুঁটিনাটি

ফাগুনের প্রথম দিনটা কি করবেন, কিভাবে সাজবেন, সব কি ঠিক করে ফেলছেন ইতোমধ্যে? যদি এখনও ঠিক না করে থাকেন, তবে আপনার জন্যই আমাদের এ আয়োজন।

এইতো আর কটা দিন। ফাগুন যেন এখনই প্রকৃতির দরজায় কড়া নাড়ছে। কেবল প্রকৃতি বললে ভুল হবে তরুণ তরুণী থেকে শুরু করে সব বয়সের মানুষের মনেও এখন বসন্তের আবহ। ফাগুনের প্রথম দিনটা কি করবেন, কিভাবে সাজবেন, সব কি ঠিক করে ফেলছেন ইতোমধ্যে? যদি এখনও ঠিক না করে থাকেন, তবে আপনার জন্যই আমাদের এ আয়োজন।

পরতে চাইলে রঙিন শাড়ি: বিশেষ করে তরুণীরা পহেলা ফাল্গুনে শাড়ী পরতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে থাকেন। আগে বাসন্তী আর হলুদ রঙের ট্রেন্ড থেকলেও এখন তরুনীরা সহ সকল বয়সের নারীরাই তা থেকে বেশ অনেকটা দূরে সরে এসেছেন। এখন গোলাপী, কমলা, নীল ইত্যাদি রঙ দিব্যি মানিয়ে যায় পহেলা ফাল্গুনের আবহের সাথে। 

দেশীয় ফ্যাশন হাউজগুলো এরই মাঝে নানা রঙের নানা ঢং এর শাড়ির সমাহার ঘটিয়েছে। মায়ের আলমারীতে রাখা পুরোনো শাড়ি বগলদাবা করতে চাইলে এখনই করে ফেলুন। আর, নতুন শাড়ি কিনতে চাইলে আজ কালের ভেতরই শপিং মলগুলো তে ঢু মেরে কিনে ফেলুন।

পরতে পারেন থ্রিপিস বা গাউন: শাড়ি সামলানোর ভয়ে যদি শাড়ি পরতে না চান তবে আপনি পরতে পারেন থ্রি পিস বা গাউন। নিজে গজ কাপড় কিনে বানিয়ে ফেলতে পারেন নিজের ডিজাইন মত পোশাক কিংবা কিনতে পারেন যে কোন বুটিক হাউজ থেকে। প্রাধান্য দিতে পারেন হলুদ, কমলা, লাল রঙ গুলোতে। তবে ব্যাতিক্রমি সাজতে চাইলে নীল বা গোলাপিও পছন্দ করতে পারেন।

কেমন হবে ফাগুনের সাজ: প্রথমেই আশা যাক চুলের সাজের কথায়। ফাল্গুনের সাজ হিসেবে খোলা চুলই বেশি মানায়। তাই চুল খোলা রাখুন। আর মাথায় কাঁচা ফুলের ক্রাউন পরুন। শাহবাগের দিকে ৩০-১০০টাকার ভেতরে পাবেন এসব ফুলের ক্রাউন। আপনার ফাল্গুনের সৌন্দর্যের মাত্রা বহুগুনে বাড়িয়ে দিবে এই ক্রাউন।

নেহাৎ যদি চুল খোলা রাখতে অস্বস্তি বোধ করে থাকেন তবে খেজুর বেনী বা খোপা করে নিতে পারেন। তাতে গাঁদা কিংবা জারবেরা ফুল জড়িয়ে নিতে ভুলবেন না যেন।

ফাল্গুনের সাজে সজীবতা ধরে রাখতে চেষ্টা করুন। ভারী মেকআপ একদমই করবেন না। মনে রাখবেন, পহেলা ফাল্গুন প্রকৃতিকে বরন করার উৎসব তাই প্রাকৃতিক থাকাই শ্রেয়। চোখে একটু কাজল লাগিয়ে নিন আর ঠোটে হালকা রঙের লিপস্টিক। এতটুকুও যথেষ্ট। বাড়তি সাজ হিসেবে চোখে হালকা শেডের আইশ্যাডো আর কপালে একটা টিপ ব্যবহার করতে পারেন।

হাতে কাঁচের চুড়ি পরুন। এক রঙের চুড়ি না পরে বিভিন্ন রঙের মিলিয়ে পরুন। ভালো লাগবে। চাইলে চিকন ফুলের মালাও হাতে জড়িয়ে নিতে পারেন।

তরুণ পরবে রঙিন পাঞ্জাবী: বাঙালির সংস্কৃতির সাথে জড়িয়ে আছে পাঞ্জাবীর নাম। আর উৎসব হলে তো কথাই নেই। হিমুভক্ত তরুণরা এবার ফাল্গুনের প্রথম দিন পরতে পারেন হলুদ পাঞ্জাবী। কেবল তরুন কেন যেকোন বয়সী পুরুষকে মানাবে এ রঙের পাঞ্জাবীতে। সবুজ, বেগুনী আর বাসন্তী রঙকেও প্রাধান্য দিতে পারেন। 

আড়ং, কে ক্র্যাফট, ফড়িং, অঞ্জন্স, রঙ, দেশাল সহ দেশীয় সব ফ্যাশন হাউজগুলোতে পাবেন বাহারী রঙের সব পাঞ্জাবী। দাম পড়বে ৮০০ – ২,৫০০ এর ভেতর। ইয়েলো, ইস্টেসি ইত্যদি ফ্যাশন হাউজগুলোতে চলছে মূল্যছাড়। সেখান থেকেও কিনে ফেলতে পারেন পছন্দের পাঞ্জাবী।

তাহলে আর কি। এবার কেবল কটা দিনের অপেক্ষা। সাজুন মনের ইচ্ছে মত বরন করে নিন ঋতুরাজ বসন্তকে। রঙেঢঙে দারুন কাটুক সবার ফাল্গুনের প্রথম দিন। 


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

তরুণী, তরুণ, কাপড়চোপড়, সাজগোজ, বরণ, বসন্ত, পহেলা-ফাল্গুন