সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Face-Powder-Different-Use.jpg

ভিন্নধর্মী ব্যবহার বিরক্তিকর সমস্যার সমাধানে সঙ্গী যখন ফেস পাউডার

আপনি নিশ্চয়ই ঠিক মেকআপের কারনেই ফেস পাউডার ব্যবহার করেন। আমি যদি বলি, এছাড়াও অনেক কাজ আপনি করতে পারেন এই মেকআপ কিটটি দিয়ে, নিশ্চয়ই অবাক হবেন!

মেকআপ করতে ভালোবাসেন এমন নারীর কাছে ফেস পাউডার একটি অতি পরিচিত নাম। মেকআপ এর ফাইনাল টাচ দেয়ার জন্য ফেস পাউডারের জুড়ি নেই।

আপনি নিশ্চয়ই ঠিক মেকআপের কারনেই ফেস পাউডার ব্যবহার করেন। আমি যদি বলি, এছাড়াও অনেক কাজ আপনি করতে পারেন এই মেকআপ কিটটি দিয়ে, নিশ্চয়ই অবাক হবেন। অবাক করার মত হলেও আসলেই এই ফেস পাউডার দিয়ে করতে পারেন ঘরের অন্যান্য কাজ।

আসুন জানা কাজ কি করতে পারেন এই ফেস পাউডার দিয়ে।

শুষ্ক শ্যাম্পু হিসেবে ফেস পাউডার:
শুষ্ক শ্যাম্পুর বিকল্প হিসেবে ফেস পাউডারের জুড়ি নেই। এ জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হল চিরুনিতে খানিকটা ফেস পাউডার ছড়িয়ে সুন্দর করে মাথার ত্বক থেকে শুরু করে উপরিভাগ পর্যন্ত চুল আচড়ে নিতে হবে। ফেস পাউডার আপনার চুল থেক তৈলাক্ত ভাব দূর করে শাইনি ভাব এনে দেবে আর চুলকে মিষ্টি সুগন্ধে ভরিয়ে তুলবে। আর এই সুগন্ধ কিন্তু পরবর্তী চুল ধোয়া পর্যন্ত বহাল থাকবে।

ওয়াক্সিয়ের কষ্টদায়ক ব্যাথা থেকে মুক্তি:
ওয়াক্সিং করতে ভালোবাসেন কিন্তু ব্যাথার ভয়ে করেন না, এমন মানুষের সংখ্যা নেহায়েৎ কম নয়। এই কষ্টদায়ক ব্যাথা থেকে মুক্তি পেতে ফেস পাউডার নিঃসন্দেহে খুব ভালো সমাধান দেবে আপনাকে।

ওয়াক্সিং করার পুর্বে ওয়াক্সিং করার স্থানে একটু ফেস পাউডার দিয়ে নিন তারপর ওয়াক্সিং করুন। ফেস পাউডার লোমকুপের ভেতরে গিয়ে আপনার লোম খুব সহজে এবং ব্যাথাবিহীন ভাবে উপড়ে ফেলতে সাহায্য করবে। কেবল তাই নয়। ফেস পাউডার ওয়াক্সিং এর পর আপনার ত্বককে লাল হওয়া থেকেও রক্ষা করবে।

পোশাক থেকে তেল চিটচিটে দাগ দূর করতে:
আপনার প্রিয় পোশাক থেকে তেলের দাগ তোলার সবচেয়ে দ্রুততম উপায় হচ্ছে ফেস পাউডার ব্যবহার করা। অবাক হচ্ছেন? সত্যি বলছি। এরপর কখনও পোশাক থেকে তেল চিটচিটে অবস্থা দূর করতে হলে সে স্থানে ফেস পাউডার দিয়ে ঘষতে থাকুন। তারপর ওয়াশিং পাউডার দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। যতক্ষন পর্যন্ত না পোশাকের সাধারণ অবস্থা ফিরে আসছে ততক্ষন পর্যন্ত প্রক্রিয়াটি চালিয়ে যান বারবার। ধীরে ধীরে দাগ উঠে যাবে।

পুরনো বইয়ে সতেজতা:
খুব বেশী পুরনো বইগুলোতে কেমন জানি একটা স্যাঁতসেঁতে গন্ধ থাকে। সতেজতা ফিরে পেতে চান? বুক সেলফ থেকে পুরনো বইগুলো বের করুন। খানিকটা সময় বাতাসে রাখুন যেন আর্দ্রভাব শুকিয়ে যায়। এরপর কয়েক পৃষ্ঠা পর পর চিমটি করে ফেস পাউডার দিয়ে দিন। বই বন্ধ করে সারা রাত রেখে দিন। পরদিন সকালে বই খুলে পাউডার ঝেড়ে ফেলুন আর দেখুন বইয়ের সতেজতা।

জুতোর ভেতরের কটু গন্ধ দূর করতে:
শু জুতো বা স্কুলের জুতোগুলোতে বিশেষ করে প্রচন্ড কটু গন্ধ হয় আর তার জন্য অনেকসময় বিব্রতকর পরিস্থিতিতেও পড়তে হয়। এই গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে ব্যবহার করুন ফেস পাউডার। রাতের বেলার জুতোর ভেতরে ফেস পাউডার ছড়িয়ে রাখুন। দিনে বাইরে বের হবার সময় পাউডারগুলো ঝেড়ে ফেলে দিন। চাইলে রেখেও দিতে পারেন। আর জুতোর ভেতর কটু গন্ধ হবেনা।

পিঁপড়ার যন্ত্রনা থেকে মুক্তি:
ঘরকে পিঁপড়ামুক্ত রাখতে ব্যবহার করুন ফেস পাউডার। পুরো ঘরে একটু একটু করে ফেস পাউডার ছড়িয়ে দিন। দেখবেন, পিঁপড়ের দল পালাচ্ছে। যাদের ঘরে ছোট বাচ্চা আছে তাদের জন্য এটি সবচেয়ে ভালো কেননা এতে কোন ক্ষতিকারক পদার্থ নেই। আর সেই সাথে আপনার রান্নাঘর ও থাকবে সুরক্ষিত।

দেখলেন তো মেকআপের আনুসাঙ্গিক ফেস পাউডার মেকআপ ছাড়াও কত কাজে লাগে আমাদের? এখন থেকে তাহলে প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবহার করুন আপনার ফেস পাউডার।

তথ্যসূত্রঃ স্টাইল ক্রেজ


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

ফেস-পাউডার, মেকআপ, ভিন্নধর্মী-ব্যবহার, দৈনন্দিন