সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Makeup-kit-care.jpg

জেনে রাখুন কীভাবে ভালো রাখবেন শখের প্রসাধনী

মানুষের ত্বক খুব সেনসিটিভ। তাই প্রসাধনী ব্যবহারে একটু সাবধানতা অবলম্বন করুন। বিশেষ করে ভালো মানের এবং মেয়াদ থাকা প্রসাধনী ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

সারা বছর নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে নারীরা প্রতিনিয়ত নানা রকম প্রসাধনী ক্রয় করে থাকেন। এর মধ্যে ত্বক, চোখ, চুলের সৌন্দর্য বাড়িয়ে দেয় এমন প্রসাধনীই বেশি।

কিন্তু এগুলো মেয়াদ উত্তীর্ণ ও নষ্ট প্রসাধনী হলে তা ব্যবহারে যেমন বড় ধরনের ক্ষতিও হতে পারে, তেমনি এগুলোর সঠিক যত্ন না নিলে প্রসাধনীর গায়ে লেখা মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার তারিখের আগেই তা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই শখের প্রসাধনীগুলোর সঠিক যত্ন নিলে এগুলো দীর্ঘদিন ব্যবহার করতে পারবেন।

আমরা সববসময় আমাদের ত্বক ভালো রাখা নিয়ে চিন্তা করি। কিন্তু একরাবও চিন্তা করি না, যে প্রসাধনী দিয়ে আমরা ভালো ও সুন্দর ত্বক পাই। সেগুলোরও একটা পরিচর্যা দরকার হয়। যেমন: 
  • আলাদা আলাদা বক্স নির্বাচন করুন প্রসাধনী ভালো রাখতে। এতে করে সঠিক জায়গায় থাকবে এবং খুঁজে পেতেও সহজ হবে।
  • অনেক ওষুধ যেমন আলোর উপস্থিতিতে রাসায়নিক বিক্রিয়া করে, তেমনি অনেক প্রসাধনীও তাপ, আর্দ্রতা এবং আলোর সঙ্গে বিক্রিয়া করে। সাধারণত প্রসাধনীগুলো ৫ থেকে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় রাখুন। এর থেকে কম তাপমাত্রায় রাখলে প্রসাধনী জমে যেতে পারে এবং বেশি তাপমাত্রায় রাখলে নরম হয়ে যেতে পারে।
  • ত্বকের জন্য যেসব প্রসাধনী ক্রয় করেন সেগুলো আপনি ফ্রিজে রেখে সুন্দরভাবে ব্যবহার করতে পারেন।
  • প্রসাধনী শুধু আলোতেই বিক্রিয়া করে না, অনেক সময় বাতাসেও বিক্রিয়া করে। ফলে ব্যবহার করছেন এমন প্রসাধনী কখনো ঢাকনা  খুলে রাখবেন না।  
  • মেয়াদ উত্তীর্ণ প্রসাধনী ব্যবহার করা থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকুন। এতে ত্বকে র‌্যাশ কিংবা অনেক বড় ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে।
  • নিজের ব্রাশ, পাফ বা স্পঞ্জ, তুলি এইসব অন্যকে ব্যবহার করতে দিবেন না। অন্যের এসব ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন। এতে করে কারো ত্বকের সমস্যা থাকলে তা অন্য কারো হবে না। এগুলো সবসময় পরিষ্কার এবং শুকিয়ে রাখার চেষ্টা করবেন।
  • লিপস্টিকে বাজে গন্ধ হয়ে গেলে বা শুকিয়ে গেলে তা ব্যবহার করবেন না। লিপ লাইনার সবসময় শার্প করে ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন।
  • খুব তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায় চোখের সৌন্দর্য বাড়ানো প্রসাধনীগুলো। যেমন: কাজল, আইলাইনার, মাসকারা ইত্যাদি। জমে যাওয়া আইলাইনার কিংবা মাসকারা পানিতে ভিজিয়ে ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন না। এতে করে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের ভয় থেকে যায়। এগুলো খোলার পর থেকে ৪ মাস পযর্ন্ত ব্যবহার করবেন, তার বেশি না।

কোনো প্রসাধনী সম্পর্কে কিছু না জেনে ব্যবহার করা ঠিক হবে না। এতে ত্বকের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। তাই প্রসাধনীর গায়ে ব্যবহার ও যত্নের বিশেষ কিছু নির্দেশনা লেখা থাকে। ব্যবহারের আগে নির্দেশনা পড়ে তারপর তা ব্যবহার করা ভালো। এতে ত্বক ও প্রসাধনী উভয়ই ভালো থাকবে।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

প্রসাধনী, যত্ন, ত্বক, চোখ, চুল, সৌন্দর্য, ব্রাশ, পাফ, স্পঞ্জ, তুলি, লিপ-লাইনার, লিপস্টিক, মাশকারা, আইলাইনার