• rongdhong
  • charpash
  • baganbilas
  • cholopalai
  • deshiranna
  • paribarik
  • chomotkar
  • roopkotha
  • banglafy
  • dhakatalks
রান্নাবান্না

পেপে ডাল


পথ চাওয়াতেই আনন্দ ২৫ অক্টবর ২০১১, ২৩:২৩


পুষ্টি ও স্বাদের সুসমন্বয় আছে খাবারটিতে। গরম ভাতের সাথে খেতে বেশ মজা এই পেপে ডাল। উপকরণ: পেপে, মুগ ডাল, সয়াবিন তেল, আদা বাটা, কাচা মরিচ, লবন, হলুদ ও পাঁচ-ফোরন। প্রণালী: পেপে ছোট ছোট টুকরো করে কেটে ভাপে সিদ্ধ করে নিন। ডাল সিদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার গরম তেলে পাচ ফোরন , লবন, সামান্য আদাবাটা দিন। একটুপরে ডাল ও ভাপে সিদ্ধ করা পেপে দিয়ে নাড়াচাড়া করে সামান্য হলুদ ছিটিয়ে দিন। অল্প পানি দিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে দিন। এবার মরিচ দিন। মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে গরম গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন।
এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

papaya, recipe, dal, tasty, Nutrition, rice


কালা ভুনা

কালা ভুনার নাম শুনলেই যেন জিভে পানি এসে যায়। যারা গরুর গোস্ত খুব পছন্দ করেন তাদের খুব পছন্দের একটি খাবার এই কালা ভুনা। রান্নার পর গোস্তের রঙ কালো হয় বলেই হয়তো এর নাম বলা হয় কালো/কালা ভুনা। এটি খুবই সুস্বাদু ও মুখরোচক একটি খাবার। উপকরণ: গরুর গোস্ত, সয়াবিন তেল, সরিষার তেল, লবন, পিয়াজ কুচি, পিয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা,লাল মরিচ বাটা, লবন, জিরা গুড়া, ধনিয়া গুড়া, এলাচ, লবঙ্গ ও দারচিনি বাটা, তেজপাতা, গোলমরিচ বাটা, কাবাব চিনি বাটা, জয়ফল ও জয়ত্রি বাটা। প্রণালী: প্রথমে গোস্ত একটি পাত্রে গোলমরিচ ও গরম মশলা ছাড়া অন্যান্য সব উপকরণ দিয়ে ভা...

শশা ডিম

ডিম ও শসা মূল উপকরণ হওয়ায় এই খাবারটির নাম শসা ডিম। খুব অল্প সময়ে ও সহজেই এটি রান্না করা সম্ভব। হাতে সময় কম কিন্তু ক্ষুধাও পেয়েছে এমন সময় ঝটপট তৈরী করে নিতে পারেন মজার এই খাবারটি। উপকরণ: ডিম, শশা, তেল, কাচা মরিচ, লবন, সয়াসস, পিয়াজ, রসুন ও টেস্টিং সল্ট। প্রণালী: প্রথমে একটি পাত্রে ডিম ভালো করে ফেটে নিন। গরম তেলে ফেটানো ডিম দিয়ে তাতে সয়াসস দিয়ে কিছুক্ষন নেরে আলাদা বাটিতে তুলে রাখুন। এরপর গরম তেলে পাতলা গোল করে কাটা শশা, পিয়াজ, রসুন, কাচামরিচ ও সামান্য একটু লবন দিয়ে ভাজুন। একটু পড়ে তাতে সয়াসস দিয়ে কিছুক্ষন নাড়ুন। এবার তুলে রাখা...

পুডিং

খুব কম মানুষই আছে যারা পুডিং খেতে পছন্দ করেনা। ছোট-বড় সবারই প্রিয় খাবার এটি। উপকরণ: ডিম - ৩টি, দুধ - ১ গ্লাস, চিনি - ১ কাপের কম ও ভ্যানিলা এসেন্স। প্রণালী: একটি বাটিতে ডিম খুব ভালো করে ফেটে নিন। দুধ জালিয়ে ঘন করে ঠান্ডা করে নিন। অন্য একটি বাটিতে ঘন দুধ ও চিনি একসাথে গুলে নিন এবং এরপর দুধ ও ডিম এর মিশ্রন একসাথে ভালোভাবে ফেটে নিন এবং তাতে সামান্য পরিমান ভ্যানিলা এসেন্স দিন। ঢাকনাওয়ালা একটি বাটিতে সামান্য একটু চিনি দিন। চিনি লাল লাল হয়ে আসলে তাতে পুরো মিশ্রনটি ঢেলে দিয়ে বাটির মুখ ভালোভাবে লাগিয়ে পানিতে বসিয়ে ভাপে সিদ্ধ করুন। হয়ে গেলে ...


ডালপুরি

খুবই সুস্বাদু ও মুখরোচক একটি খাবার 'ডালপুরি'। যারা একটু ভাজা খাবার পছন্দ করেন বলতে গেলে তাদের জন্য এর চেয়ে প্রিয় খাবার আর কিইবা হতে পারে! উপকরণ: মসুরের ডাল, লবন, রসুন, কাচা মরিচ, ধনিয়া পাতা, সরিষার তেল, সয়াবিন তেল ও ময়দা। প্রণালী: মসুরের ডাল, কাচা মরিচ, লবন ও রসুন একসাথে সিদ্ধ করুন। সিদ্ধ ডাল পানি ঝরিয়ে কাচামরিচ, পিয়াজ, ধনিয়া পাতা, সরিষার তেল ও লবন দিয়ে ভর্তা করুন। এবার ময়দা ভালো করে ময়ান করে গোল গোল করে তাতে ডালের পুর দিয়ে গোল করে বেলে নিন। বেলা পুরি গরম ডুবো তেলে ভেজে নিন।ভালোভাবে ভাজা হলে গরম গরম পরিবেশন করুন মজার এই ডালপু...

কোলা-চিকেন

'কোলা-চিকেন' খুবই মজার একটি খাবার। বিশেষ করে তাদের জন্য যারা একটু গোস্ত খেতে বেশি পছন্দ করেন। কোলা-চিকেন নাস্তা হিসেবে বা পোলাও এর সাথে খেতে বেশ মজা। উপকরণ: মুরগি, সয়াবিন তেল, কোলা, রসুন, সয়াসস, টেস্টিং সল্ট, গোলমরিচ ও লবন । প্রণালী: মুরগির টুকরা একটু লবন দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। এবার গরম তেলে রসুনের টুকরা ও মুরগির টুকরা দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়ুন। মুরগি একটু ভাজা ভাজা হয়ে এলে তাতে কোলা ঢেলে দিন। একটু পর সয়াসস দিন। কোলা আর মুরগি মাখা মাখা হলে সামান্য টেস্টিং সল্ট ও গোলমরিচ দিয়ে নাড়াচাড়া করে নিন। হয়ে গেলো মজার কোলা মুরগি। গরম গরম পরিবেশন করুন।